অগ্নিদগ্ধ হয়ে সৌদি আরবে মৃত্যু বরন করেন নরসিংদীর বোরহান উদ্দিন

আওয়ার বাংলাদেশ
প্রকাশিত নভেম্বর ২৬, ২০১৯
অগ্নিদগ্ধ হয়ে সৌদি আরবে মৃত্যু বরন করেন নরসিংদীর বোরহান উদ্দিন

তানিম ইবনে তাহের

নরসিংদী জেলা প্রতিনিধি:

সৌদি আরবে অগ্নিদগ্ধ হয়ে বোরহান উদ্দিন (২৫) নামে নরসিংদীর মনোহরদী উপজেলার এক প্রবাসীর মৃত্যু হয়েছে। নিহত বোরহান উপজেলার বড়চাপা ইউনিয়নের উরুলিয়া গ্রামের আলী আকবরের ছেলে বোরহান। জীবিকার তাগিদে প্রায় ৪ বছর আগে সৌদি আরবে গিয়েছিলেন বোরহান উদ্দিন। সেখানে গিয়ে রিয়াদ শহরের ইমামা কোম্পানিতে চাকুরী করছিলেন বোরহান উদ্দিন। সেখানেই নিজ বাসস্থানে ঘুমন্ত অবস্থায় গত রবিবার (২৪ নভেম্বর) মারা যায় বোরহান। নিহত বোরহানের চাচা আবু তাহের ছিদ্দিকী জানান, বোরহানের পারিবারিক স্বচ্ছলতা আনতে প্রায় ৪ বছর আগে সৌদি আরবে পাড়ি দেয় বোরহান। ওখানে ৩ বছর চাকুরী শেষে ছুটি নিয়ে দেশেও আসে সে। দেশে এসে বিয়ে করে দুই মাস পর আবারও ফিরে যায় সৌদি আরবে। গত রবিবার রাতে প্রতিদিনের মতো কাজ শেষে বাসায় এসে রাতের খাবার শেষে সহকর্মীকে নিয়ে ঘুমিয়ে পড়েন বোরহান। কিন্তু ভাগ্যের নির্মম পরিহাস এই ঘুমই হলো বোরহানের চিরদিনের ঘুম। রাতে হঠাৎ এসির বৈদ্যুতিক সর্টসার্কিটের আগুন লেগে মুহুর্তেই পুরো ঘরে আগুনের লেলিহাল শিখা ছড়িয়ে পড়ে। মুহুর্তেই ঘুমন্ত অবস্থায়ই বোরহান উদ্দিন ও অপর সহকর্মী অগ্নিদগ্ধ হয়। কিন্তু কেউ এসে উদ্ধার করার আগেই তাদের মৃত্যু হয়। অগ্নিদগ্ধের খবর পেয়ে বোরহানের গ্রামের প্রতিবেশী মহর আলী সৌদি ঘটনাস্থলে গিয়ে বোরহানের মরদেহ সনাক্ত করেন। বাংলাদেশে তার পরিবারকে নিহতের খবর জানান মহর আলী। এদিকে নব বিবাহিতা বোরহানের স্ত্রী লিজা স্বামীর এই অকাল মৃত্যুতে বারবার মুর্ছা যায়। স্বামীর কথা বলতে গিয়ে বলেন, বিয়ের মাত্র ২ মাস ঘর সংসার করেছি। এরই মধ্যে স্বামীকে আল্লাহ নিয়ে গেলো। আমি শেষবারের মতো তার মুখটা দেখতে চাই। তাই তার মরদেহটি দেশে আনার জন্য সরকারের হস্তক্ষেপ কামনা করি। অপরদিকে প্রিয় সন্তান বোরহানকে অকালে হারিয়ে বার বার জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন বাবা-মা। প্রিয় সন্তানের মুখটি দেখতে সরকারের দ্রুত সহযোগিতা কামনা করছেন সৌদি আরবে অগ্নিদগ্ধ হয়ে নিহত বোরহানের পরিবার।

Sharing is caring!